Projukti Protidin

(আহমেদ ইফতেখার) হুয়াওয়ের টেলিকম সরঞ্জাম কিংবা ডিভাইস ব্যবহার করলে তথ্য চুরির আশঙ্কা রয়েছে, যা জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়ার পর যুক্তরাজ্যও হুয়াওয়ের পণ্যের নিরাপত্তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছে। কারণ হুয়াওয়ের ওপর চীন সরকারের প্রভাব রয়েছে।

যুক্তরাজ্যের এক সরকারি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রতিষ্ঠানটির ব্রডব্যান্ড ও মোবাইল ইনফ্রাস্ট্রাকচার সরঞ্জামে জাতীয় নিরাপত্তায় হুমকির ঝুঁকিতে পরতে পারে হুয়াওয়ের পণ্য ব্যবহারে।
যুক্তরাজ্যের বিটিসহ অন্যান্য টেলিকম সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো হুয়াওয়ের সরঞ্জাম ব্যবহারের কারণে কোনো ঝুঁকি আছে কিনা, তা খতিয়ে দেখতে ২০১০ সালে হুয়াওয়ে সাইবার সিকিউরিটি ইভল্যুশন সেন্টার (এইচসিএসইসি) গড়ে তোলা হয়। যুক্তরাজ্যের নিরাপত্তা কর্মকর্তারা এর দেখাশোনা করেন।
এইচসিএসইসি প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৭ সালে শেনঝেনে পরিদর্শনের সময় দেখা গেছে, হুয়াওয়ে থার্ড পার্টি কম্পোন্যান্ট ব্যবহারে যথাযথ তদারকিতে ব্যর্থ হচ্ছে। এ প্রক্রিয়ায় যুক্ত উপাদান বিশেষ করে বিভিন্ন পণ্যে ব্যবহূত নিরাপত্তার ঝুঁকিতে থাকা থার্ড পার্টি সফটওয়্যারে প্রতিষ্ঠানটির যথাযথ নিয়ন্ত্রণ নেই।
হুয়াওয়ে টেকনোলজিস তাদের সরঞ্জামে যুক্তরাষ্ট্রের উইন্ড রিভার সিস্টেমসের তৈরি পুরনো ভিএক্সওয়ার্কস অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করায় যুক্তরাজ্যে তদন্তের মুছে পড়েছে। দেশটির আশঙ্কা, এসব টেলিকম সরঞ্জাম ব্যবহার করলে চীন গুপ্তচরবৃত্তির সুযোগ পাবে।
যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়ার আইনপ্রণেতারা হুয়াওয়ের পণ্যের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছেন। তাদের মতে, প্রতিষ্ঠানটির পণ্য ব্যবহার করলে চীন গোয়েন্দাগিরির সুযোগ পাবে। তবে হুয়াওয়ে বরাবরই এ ধরনের অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *