Projukti Protidin

(প্রযুক্তি প্রতিদিন) ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের আরোপিত অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করার অভিযোগে চীনা টেলিকম ব্র্যান্ড হুয়াওয়ে‌র প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) ও হুয়াওয়ের প্রতিষ্ঠাতা রেন ঝেংফেইয়ের মেয়ে মেং ওয়ানঝুকে গ্রেপ্তার করেছে কানাডীয় কর্তৃপক্ষ।

যুক্তরাষ্ট্রের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অনুরোধে গ্রেপ্তার করেছে কানাডার কর্তৃপক্ষ। কানাডার বিচার বিভাগ সূত্র জানিয়েছে, ১ ডিসেম্বর বিমানবন্দর থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। আজ তাঁর জামিনের শুনানি হতে পারে। মেং হুয়াওয়ের প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা পাশাপাশি ডেপুটি চেয়ারম্যান।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়, যুক্তরাষ্ট্র মেং ওয়ানঝুকে হস্তান্তরের জন্য অনুরোধ করেছে বলেও জানিয়েছে কানাডার বিচার বিভাগ। হুয়াওয়ের প্রযুক্তিপণ্যের মাধ্যমে চীন সরকার যুক্তরাষ্ট্রে গুপ্তচরবৃত্তি চালাতে পারে বলে অভিযোগ তুলে যুক্তরাষ্ট্রের আইনপ্রণেতারা বেশ কয়েকবার বলেন, কোম্পানিটি যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে উঠছে। কানাডার বিচার বিভাগের একজন মুখপাত্র বলেছেন, মিস মেং একটি প্রকাশনা বাতিলের অনুরোধ করেছেন এবং আদালতের নির্দেশ অমান্য করেছেন।

এ ঘটনায় হুয়াওয়ে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, মেংয়ের বিরুদ্ধে কী অভিযোগ আনা হয়েছে, সে সম্পর্কে তারা খুব বেশি জানে না। মিস মেং কোনো অপরাধ করেছেন বলে তাদের জানা নেই।

যুক্তরাষ্ট্রের আইনপ্রণেতারা হুয়াওয়েকে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে অভিযোগ করেছেন এবং হুয়াওয়ে চীন সরকারের নজরদারির যন্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা হতে পারে বলে যুক্তি দিয়েছেন।

যদিও হুয়াওয়ে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সব আইনকানুন মেনে চলে। তারা মনে করে, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার বিচার বিভাগ সঠিক সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারবে। চীন কর্তৃপক্ষ যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা কর্তৃপক্ষকে দ্রুত ভুল শোধরাতে এবং মিস মেং ওয়ানঝুর ব্যক্তিগত স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে আহ্বান জানিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *